প্রেরণামূলক

ফেইল মানেই কি সব শেষ?

ফেইল মানেই কি সব শেষ?
ফেইল মানেই কি সব শেষ?
348views

কমবেশি আমাদের সবার জীবনেই ফেইল করার অভিজ্ঞতা আছে। শুধু যে পরীক্ষায় ফেইল করাই ফেইল নয়। জীবনের চলার পথে আমরা নানাভাবে ফেইল এর মুখোমুখি হয়। ফেইল মানেই কি সব শেষ? – এটির সহজ উত্তর “না”। কিন্তু এই উত্তরটি দেওয়া যত সহজ, ফেইল করার পর এটি মেনে নেওয়া ততটাই কঠিন।

কোথাও ব্যর্থ হওয়ার পর এরকম সান্ত্বনামূলক বাণী যদিও বা কোনো কাজে লাগে না। কিন্তু ছাত্রজীবনে একবার দুইবার ফেইল এর সম্মুখীন হওয়া (যেমন ধরো, কোনো পরীক্ষায় পাশ মার্ক তুলতে না পারা, কোনো ক্লাসে প্রমোশোন না পাওয়া কিংবা পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি হতে না পারা) কিন্তু আপাতদৃষ্টিতে অনেক বড় ফেইলার বা ব্যর্থতা মনে হলেও তোমার জীবনে তেমন উল্লেখযোগ্য কোনো প্রভাব ফেলবে না।

স্কিল ডেভেলপমেন্ট ও নানা রকম মজার টপিক নিয়ে আমরা নিয়মিত ভিডিও প্রকাশ করে থাকি Shadhin School চ্যানেল এ।

জীবনে নানাভাবে ফেইল বা ব্যার্থ হতে পারো। কিন্তু মন খারাপ করে কিংবা কস্ট নিয়ে হতাশ বা পিছিয়ে পড়লে চলবে না। নতুন উদ্দোমে এগিয়ে যেতে হবে তোমাকে। লাইফ তোমার, তোমাকেই করে দেখাতে হবে। আজকে আমি কিছু পয়েন্ট নিয়ে আলোচনা করবো যা তোমাকে ব্যার্থতা কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করবে বলে আমার বিশ্বাস।

১। হতাশ হওয়া যাবেনা কোনোভাবেই

কোনোভাবেই depressed হবে না। যত বড় ব্যর্থতা বা ফেইলের সম্মুখিন হউ না কেনো। ডিপ্রেসড হয়ে তুমি যদি ব্যর্থ হওয়া নিয়ে গভীরভাবে ভাবতে থাকো তাহলে সেটি তোমার দুশ্চিন্তা বাড়ানো ছাড়া আর কোনো কাজে আসবে না। আর এভাবে হলে পরবর্তীতে সফল হবার সম্ভাবনাটাও কমে যায়।

কারণ এই দুইটা জিনিষ আমাদেরকে ভেতর থেকে শেষ করে দেয়। সবচেয়ে বড় কথা, কোথাও ব্যর্থ হবার পর ডিপ্রেসড হয়ে গেলে সেই ডিপ্রেসনটা আস্তে আস্তে তোমার জীবনের এ পর্যন্ত করা সবধরণের ভুল গুলোকে মনে করিয়ে দিবে আর তাতে তোমার নিজেকে এত তুচ্ছ মনে হবে যে তুমি সেই ব্যর্থতা থেকে আর উঠে দাঁড়াতে পারবে না। এজন্যই অযথা ডিপ্রেশনে না ভুগে বর্তমানটাকে ভাল করার চেষ্টা করলে পুরোনো ব্যর্থতা তোমার বর্তমানের তুলনায় তুচ্ছ হয়ে যাবে।

আরো পড়তে পারো ই-মেইল ব্যবহার এর ৬টি শিস্টচার

২। তোমাকে দিয়েই হবে

তুমি আসলেই সেদিন ব্যার্থ যেদিন তুমি মনে করবে “আমাকে দিয়ে কিচ্ছু হবে না”। আসলেও তোমাকে দিয়ে কিচ্ছু হবে না কারণ সফল হবার জন্য যে মনোবলই তাই তো তোমার মধ্যে নেই। সফল হতে হবে তোমার, প্রতিকূল পরিবেশেও লড়তে হবে তোমার। তোমার হয়ে কেউ কখনো লড়তে আসবে না। তাই “আমিই পারবো, আমাকে দিয়েই হবে” এই বিশ্বাসটা তোমার জাগ্রত করতে হবে।

তাই সবসময়ই নিজেকে অনেক মূল্যবান মনে করবে, হয়ত এবার সফলতা আসেনি কিন্তু এর মানে এই না যে তুমি ইউজলেস। রাস্তায় হাঁটতে গিয়ে পা পিছলাতেই পারে কিন্তু এর মানে এই না যে তোমার সামনের দিকে যাবার ক্ষমতা নেই এই ভেবে তুমি উঠে দাঁড়াবে না। নিজেকে মোটিভেটেট করো। কারণ সেলফ মোটিভেশন এর  উপর আর কিছু নেই।

আরো পড়তে পারো দ্রুত টাইপিং শিখার ৫টি গেম এবং অ্যাপ্লিকেশন

৩। স্বপ্ন এবং পরিশ্রম – নিশ্বাস এর মতই 

ব্যর্থতা আসতেই পারে, একবার না অনেকবারই আসতে পারে। এর মানে এই না যে তুমি তোমার স্বপ্নকে শেষ করে দিবে। মনে রাখবে এই  ব্যর্থতা সাময়িক। একভাবে স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে না পারলে অন্যভাবে করবে। স্বপ্ন এবং লক্ষ্য বাস্তবায়ন এর জন্য সবসময় সঠিক পরিকল্পনা করবে। আর সঠিক পরিকল্পনায় সবসময় মুল পরিকল্পনার সাথে ব্যাকআপ এক বা একাধিক পরিকল্পনা থাকে। একটি পরিকল্পনা যখন কাজ করে না তখন অন্যটি দিয়ে এগিয়ে যাও।

এভাবে একটার পর একটা চেস্টা করে যাও। সফল হবেই তুমি যদি তোমার স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে অবিচল থাকো হাল না ছেড়ে এবং নিরলস  পরিশ্রম করে যাও। মনে রাখবে কঠোর পরিশ্রমের কাছে হার মানতে বাধ্য সবকিছু।

আরো পড়তে পারো সঠিক সময়ে সকল কাজ শেষ করার সহজ উপায়

ফেইল বা ব্যর্থতা নিয়ে আমাদের মাঝে সবচেয়ে প্রচলিত উক্তিটি হচ্ছে, “Failure is the pillar of success”  এবং “একবার না পারিলে দেখো শতবার”। যুগে যুগে ব্যর্থ মানুষদের এই উক্তিগুলো অনুপ্রাণিত করে আসছে।

অপ্রাহ উইনফ্রে, স্টিভেন স্পিলবার্গ, থমাস আলভা এডিসন, আলবার্ট আইন্সটাইন, আব্রাহাম লিঙ্কন, এলভিস প্রিসলি,বিল গেটস, ওয়াল্ট ডিজনি, জে.কে রাওলিং সহ অনেক সফল মানুষ কিন্তু পদে পদে ব্যর্থ হয়ে এই পর্যন্ত এসেছেন আর এদের ব্যর্থতাগুলোর সামনে কিন্তু আমাদের এই ব্যর্থতাগুলো কিছুই না!

তুমি যখন বড় বড় এবং সফল মানুষদের জীবন পর্যালোচনা করবে তখন দেখবে তারা প্রত্যেকে কি পরিমাণ ব্যর্থতার মধ্যে দিয়ে এই পর্যন্ত এসেছে। তখন তুমি হতাশ হয়ে পরবে তোমার ব্যর্থতা নিয়ে, তুমি সফল মানুষদের জীবন থেকে অনুপ্রেরণা নাও। উনারা যদি তখনই দমে যেত, তাহলে উনারা কখনই সফল হতেন না। তুমিও তো সফল হতে চাও নাকি? তাহলে এখনই দমে যাচ্ছো যে?

আরো পড়তে পারো
Google এর যেসব এপ্লিকেশন স্মার্টফোন ব্যবহারকে করবে আরো সহজ
বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে ধনী অভিনেতা কে জানো?
ফেসবুকে সময় নষ্ট না করে কাজে লাগাও
শিখে নাও কিভাবে ফোন কাভার বানাবে!

 

Leave a Response

Abdullah Abu Sayeed
I am an Architecture student who loves to narrate story through lens. Loves to writes and wants to be a successful Entrepreneur.